জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত থাকা পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়ার দাবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত থাকা পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রুপ ও স্টাটাসে এই দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘করোনাভাইরাসের এই সময়ে অন্য সকল প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় চললেও বন্ধ আছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম।

এ কারণে বিভিন্ন বিভাগে স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলোও এখনো সম্পন্ন হয়নি। এতে দুশ্চিন্ত্মায় পড়েছেন অনার্স, মাস্টার্স এবং ডিগ্রী কোর্সের কয়েক লক্ষ শিক্ষার্থী।

পরীক্ষা না হওয়ায় যাদের সার্টিফিকেট কিংবা ফলাফল আটকে আছে, তারা কোনো চাকরিতেও আবেদন করতে পারছেন না।

তাই সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে আমরা কর্তৃপক্ষের প্রতি স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

এছাড়া চলতি মাসে ২২ হাজার এর বেশী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এটি নিয়ে অনেক শিক্ষার্থীর আশা ভঙ্গ হতে পারে যদি তারা যথা সময় তাদের কোর্স শেষ করতে পারে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের বিনীত অনুরোধ – এতো বড় একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে যারা অনার্সের ৪/৫টি ফাইনাল পরীক্ষা করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সংকটের কারণে দিতে পারেনি, তারা হয়তো এই আবেদনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবে।

এতে দিনে পরীক্ষাগুলো নিশ্চিত হয়ে যেত, যদি করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সংকট না দেখা দিত। এটি একটি বিশ্বব্যাপী দুর্যোগ।

শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে প্রয়োজনে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।

আশা করছি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করে দ্রুত পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

তাদের যুক্তি, যদি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া যায় তবে কেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থগিত থাকা পরীক্ষা অনলাইনে নেয়া হবেনা?

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Shares