পরিচালকের গার্লফ্রেন্ডের প্রেমে পড়েই বলিউডে প্রথম ব্রেক পেয়েছিলেন সলমন!

অ্যাড-গুরু কৈলাস সুরেন্দ্রনাথের হাতেই বলিউডে প্রথম ব্রেক মেলে সলমন খানের। কিন্তু কী ভাবে মিলেছিল সেই ব্রেক?

সম্প্রতি এক চ্যাট-শো তে এসে প্রথম ব্রেকের এমন কিছু না জানা তথ্য শেয়ার করলেন সলমন যা শুনলে চমকে যাবেন আপনিও!

সলমনের কথায়, “সি-রক সুইমিং ক্লাবে গিয়েছিলাম।

হঠাৎ দেখি, লাল শাড়িতে এক সুন্দরী হেঁটে আসছেন। তাঁকে ইমপ্রেস করতে তখনই ডাইভ দিই জলে। এমন বোকা ছিলাম, পুরো পুল ডুব সাঁতার দিয়ে গিয়েছিলাম,

যদি একটু হলেও মন জয় করতে পারি তাঁর। যখন ডুব দিয়ে উঠলাম, দেখি তিনি আর ধারে কাছে কোথাও নেই।”

পরের দিন ফার প্রোডাকশন হাউজ থেকে ফোন আসে সলমনের কাছে। আসতে বলা হয় স্টুডিয়োতে। জানানো হয়, এক কোলা ব্র্যান্ডের জন্য ডাকা হয়েছে তাঁকে।

এদিকে সলমনের তো মাথায় হাত! তাঁকেই কেন ডাকা হল কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না।

তাঁর নাম্বারই বা কোথা থেকে পেল সেই প্রযোজক সংস্থা, তাও কিছুতেই  মাথায় আসছিল না সল্লু ভাইয়ের।

যাই হোক, পৌঁছলেন স্টুডিয়োতে। সামনে দাঁড়িয়ে কৈলাস সুরেন্দ্রনাথ। অফিসিয়াল কথা শেষ হতেই সলমন কৈলাসকে জিজ্ঞাসা করে ফেললেন, “সবই তো বুঝলাম। কিন্তু আমিই কেন?”

কৈলাসের উত্তর, “যে মেয়েটিকে ইমপ্রেস করার জন্য সাঁতার কাটছিলে, সে আমার প্রেমিকা। ও-ই আমাকে বলল, তুমি ভাল সাঁতার কাটতে পারো। আমরা এমনই একজনকে খুঁজছিলাম।”

ব্যস, আর কী! ভাইজানের ‘লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট’ই যে তাঁকে ব্রেক এনে দেবেন, তা কি তিনি নিজেও ভাবতে পেরেছিলেন! গ্ল্যামার জগতে পা রাখলেন সলমন। বাকিটা তো ইতিহাস।

২০১৯-এও সেলুলয়েড কাঁপাচ্ছেন তিনি। গত সপ্তাহতেই মুক্তি পেয়েছে ‘দবং ৩’। হাতে রয়েছে প্রভুদেবা পরিচালিত ‘রাধে’। পরের বছর ইদে মুক্তি পাবে সেই ছবি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares