সাবধানের মাইর নাই, আমেরিকার প্রেসিডেন্টও করোনাক্রান্ত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকাঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনাভাইরাস ঠেকাতে সাবধানতার কোনো মাইর নাই। সাবধানতা অবলম্বন করলেই কেবল এই ভাইরাসকে ঠেকানো যাবে। শুধু ভ্যাকসিনের মাধ্যমে যে করোনা ঠেকানো যাবে তা না।

আজ রবিবার (০৪ অক্টোবর) জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন-২০২০ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর আগারগাঁও শিশু হাসপাতালে এ ক্যাম্পইনের উদ্বোধন করা হয়।

তিনি বলেন, আপনারা আমেরিকার প্রেসিডেন্টের কথা ভাবেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট কিন্তু করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এই ভাইরাস কাউকে ছাড়ছে না। ব্রিটিশ প্রাইম মিনিস্টারও আক্রান্ত হয়েছিলেন।

সেখানে বাংলাদেশ করোনাভাইরাসকে অনেক নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। যদি স্বাস্থ্যবিধি বলে মেনে চলি তাহলে আমরা ভালো থাকব।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু করেন।

এর সূচনা হয়েছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময়ে। স্বাধীনতার পরপরই দেখা গেছে, চার শতাংশের বেশি শিশু রাতকানা রোগে ভোগে। অনেকে অন্ধত্ববরণ করে।

পরিবারের জন্য জাতির জন্য তারা বোঝা হয়ে যায়। আজকে সে অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। এ

ই ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ও স্বাস্থ্যব্যবস্থা উন্নয়নের ফলে আজকে রাতকানা রোগ এক শতাংশের নিচে। আমরা আশা করছি, আগামী দিনে এই রোগ আর থাকবে না।

তিনি বলেন, সুস্থ থাকার জন্য ভিটামিন ‘এ’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শুধু রাতকানা রোগ নয়, ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুলের মাধ্যমে একটি শিশু সুন্দরভাবে শারীরিকভাবে মানসিকভাবে গড়ে উঠতে পারে।

শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। শারীরিকভাবে শিশু ভালোভাবে বেড়ে ওঠে, মানসিকভাবে অনেক মজবুত হয়।

করোনা মোকাবিলায় মন্ত্রণালয়ের সরকার সফল উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, গত ৭-৮ মাস আমাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সফলতার সঙ্গে বৈশ্বিক মারামারি করোনা মোকাবিলা করেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ (ডব্লিওএইচও) বিভিন্ন রাষ্ট্রপ্রধানরা বিবৃতি দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী একাধিকবার স্বীকৃতি দিয়েছেন। এটা আমাদের জন্য বড় পাওনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Shares